এই পাঁচটি কারণে বাড়িতে আর্থিক সমস্যা থাকে, ব্যক্তির উন্নতি হয় না

woman in white dress shirt holding white ceramic mug
শেয়ার করুন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে :

প্রতিটি মানুষ তার জীবনে সুখ ও সমৃদ্ধি পেতে চায়। এ জন্য তিনি দিনরাত পরিশ্রম করেন যাতে তিনি নিজের এবং পরিবারের সদস্যদের সব ধরনের বিলাসবহুল সুযোগ-সুবিধা দিতে পারেন। বাড়িতে সুখ, সমৃদ্ধি এবং সুখের সংযোগ নির্ভর করে আমাদের বাড়িতে কী ধরণের শক্তি থাকে তার উপর। বাড়ির চারপাশে ইতিবাচক এবং নেতিবাচক উভয় শক্তি থাকে। সুখ, গৌরব, সুখ, উন্নতি এবং মানসিক শান্তির জন্য একজন ব্যক্তির চারপাশে ইতিবাচক শক্তি থাকা খুবই প্রয়োজন। আজ আমরা আপনার সাথে এমন কিছু বিষয় নিয়ে আলোচনা করব যা একজন ব্যক্তির আর্থিক জীবনকে প্রভাবিত করে, যা বাড়িতে উপস্থিত বাস্তুর সাথে সম্পর্কিত।

ঝাড়ু

হিন্দু শাস্ত্রে, ঝাড়ুকে মা লক্ষ্মীর প্রতীক হিসাবে বিবেচনা করা হয় এবং মা লক্ষ্মী হলেন সুখ, ধন, ঐশ্বর্য, বৈভব এবং সম্পদের দেবী। এই কারণে, ঝাড়ু অর্থনৈতিক এবং সম্পদের জন্য একটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ জিনিস হিসাবে বিবেচিত হয়। বাস্তুশাস্ত্রে ঝাড়ু রাখার বিষয়ে বিস্তারিত বর্ণনা করা হয়েছে। বাস্তু অনুসারে, ঝাড়ু সবসময় এমন জায়গায় রাখা উচিত যেখানে কারও চোখ সহজেই পৌঁছাতে পারে না। এ ছাড়া ঝাড়ু কখনই ঘরে দাঁড়িয়ে রাখা উচিত নয়। বাস্তু অনুসারে, ঝাড়ুর সাথে আরও একটি কথা বলা হয়েছে, যেখানে সন্ধ্যার পরেও ঘরে ঝাড়ু লাগানো উচিত নয়। এমতাবস্থায় যে বাড়িতে ঝাড়ু সংক্রান্ত এই নিয়মগুলি মানা হয়, তারা কখনও আর্থিক সমস্যার সম্মুখীন হয় না।

কবুতরের বাসা: 

বাস্তুশাস্ত্র অনুসারে, যদি কোনও বাড়িতে কবুতরের বাসা তৈরি করা হয় তবে এটি আর্থিক সমস্যার সূচক হিসাবে বিবেচিত হয়। এমন অবস্থায় মনে রাখবেন আপনার বাড়ির কোথাও কোনো কবুতর যেন বাসা না বানাতে পারে। জ্যোতিষশাস্ত্রে ঘুঘুকে রাহুর প্রতীক হিসেবে বিবেচনা করা হয়।

ক্যাকটাস

কাঁটাযুক্ত গাছপালা: 

বাড়িতে ফুল এবং গাছপালা থাকলে তা সুখ-সমৃদ্ধির আবাস হিসেবে বিবেচিত হয়, অন্যদিকে ঘরে কাঁটাযুক্ত গাছ থাকলে অর্থনৈতিক সমস্যায় বেশি প্রভাব ফেলে। বাস্তুশাস্ত্র অনুসারে, ঘর বা উঠানে এমন কোনও গাছ লাগানো উচিত নয় যাতে কাঁটা থাকে। এতে ওই পরিবারের সদস্যদের জীবনে আর্থিক সমস্যার সৃষ্টি হয়।

মাকড়সার জাল

জাল ও আবর্জনা: 

এমনটা বিশ্বাস করা হয় যে যে বাড়িতে সর্বদা পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতা থাকে, সেখানে সর্বদা মা লক্ষ্মী এবং ভগবান কুবেরের আশীর্বাদ থাকে। জাল এবং জাঙ্ককে বাড়ির নেতিবাচক শক্তির সবচেয়ে বড় উত্স হিসাবে বিবেচনা করা হয়। এমন অবস্থায় কখনই ঘরে জাল লাগাতে দেবেন না। এই জালগুলি সময়ে সময়ে অপসারণ করা উচিত। ফাঁদ এবং নোংরা থাকার কারণে আর্থিক অবস্থা খারাপ হয়।

wrecked home furnitures interior

সীলমোহর:  

যে বাড়ির দেওয়াল ও কোণগুলি সবসময় স্যাঁতসেঁতে থাকে, সেখানে মা লক্ষ্মীর স্থান নেই। জলকে সম্পদের প্রতীক মনে করা হয়। এমন পরিস্থিতিতে যদি বাড়িতে কল থেকে জল পড়তে থাকে বা স্যাঁতসেঁতে থাকে, তবে ব্যক্তিকে তার জীবনে আর্থিক সমস্যায় পড়তে হয়।

আরো পড়ুন


শেয়ার করুন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে :

Leave a Comment

Your email address will not be published.

Scroll to Top